যশোরে ২৩১ বোতল ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

7
blurry-lights-background

যশোর প্রতিনিধি যশোরে ২৩১ বোতল ফেনসিডিলসহ সায়েম আলী (২২) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে পালানোর সময় গুলি বিনিময়ে আহত হয় সায়েম।

রোববার সকাল দশটার দিকে শহরতলীর ঝুঝুমপুর বালিয়াডাঙ্গা এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

ঘটনা সুত্রে জানাযায় , আহত যুবক মাদক ব্যবসায়ী। তার কাছ থেকে ২৩১ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার ও একটি ট্যাক্সি জব্দ করা হয়েছে।

যশোর কোতয়ালী থানার এসআই আমিরুল ইসলাম বলছেন, তাদের কাছে খবর ছিল শার্শা থেকে লালরঙা মারুতি ট্যাক্সিযোগে ফেনসিডিলের একটি চালান যশোরে আসছে। খবর পেয়ে পুলিশের কয়েকটি টিম সকালেই শহরের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেয়। এরপর তারা নির্ধারিত ট্যাক্সিকে চ্যালেঞ্জ করলে তারা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশ তাদের ধাওয়া করলে বালিয়াডাঙ্গা এলাকায় গাড়িটির চাকা খুলে যায়। ওইসময় ট্যাক্সির যাত্রীদের কেউ দুই রাউন্ড গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা এক রাউন্ড গুলি চালায়। এতে সায়েম গুলিবিদ্ধ হন। ওইসময় তিনিসহ বিপ্লব নামে আরেকজন এসআই সামান্য আহত হন।

আহত সায়েমকে আটক করা গেলেও ট্যাক্সিতে থাকা আরো দুইজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। পুলিশ ট্যাক্সিটি জব্দ এবং সেটি তল্লাশি করে ২৩১ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে, বলেন এসআই আমিরুল।

বেলা পৌনে ১২টার দিকে সায়েমকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ইন্টার্ন ডাক্তার আব্দুল কাদের জেনারেল হাসপাতালের ডাক্তার অহেদুজ্জামান আজাদের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, সায়েমের ডান পায়ে গুলিবিদ্ধ হওয়ায় শরীর থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

হাসপাতালের সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডা. আব্দুর রহিম জানান, সায়েমকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার করা হয়েছে।

কোতয়ালী থানার ওসি অপূর্ব হাসান বলেন, সায়েমের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে। তার নামে কোনো মামলা আছে কি না- তা তখনই নিশ্চিত করতে পারেননি ওসি।

আহত সায়েম যশোরের শার্শা উপজেলার উত্তর বারোপোতা এলাকার হজরত আলীর ছেলে।